আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড জিতল ছয় শিক্ষার্থী

আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড ২.০ বিজয়ীদের সঙ্গে অতিথিরা। ছবি: প্রথম আলো

আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড ২.০ বিজয়ীদের সঙ্গে অতিথিরা। ছবি: প্রথম আলোওয়ার্কিং ক্যাপিটাল, ক্যাশ ফ্লো, মার্জিন লোন নিয়ে নানা প্রশ্ন ছিল এ আয়োজনে। আয়োজক দেশের অন্যতম বড় আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি ফাইন্যান্স। আয়োজনের নাম আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড ২.০। সহায়তায় ছিল রবি-টেন মিনিট স্কুল।

আজ শুক্রবার ছিল এ আয়োজনের গালা ইভেন্ট। দ্বিতীয়বারের মতো এই আয়োজন।

বক্তব্য রাখছেন আইডিএলসি ফাইন্যান্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ খান। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, ঢাকা, ১১ অক্টোবর। ছবি: প্রথম আলো

১ম বার এ আয়োজনে অংশ নিয়েছিল ২০ হাজার শিক্ষার্থী। এবার অংশ নেয় ৪০ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী। এর মধ্য থেকে ১০০ জনকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় আজকের গালা ইভেন্ট। রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আর্থিক খাতের নানা প্রশ্নের উত্তর দিয়ে জুনিয়র ও সিনিয়র শ্রেণিতে নির্ধারণ হয় বিজয়ী ৬ জন।বক্তব্য রাখছেন আইডিএলসি ফাইন্যান্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ খান। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, ঢাকা, ১১ অক্টোবর। ছবি: প্রথম আলোজুনিয়র শ্রেণিতে অংশ নেয় ১৪ থেকে ১৮ বছরের শিক্ষার্থীরা। ১ম হয়েছেন নটরডেম কলেজের মেহেদি হাসান, দ্বিতীয় হয়েছেন চট্টগ্রামের আরিফুল হাসান ও ৩য় স্থান অর্জন করেছেন সিলেটের ইমতিয়াজ আহমেদ।

সিনিয়র শ্রেণিতে অংশ নেন ১৯ থেকে ২৪ বছরের শিক্ষার্থীরা। ১ম হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শরীফ মিয়া ও দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল আলম ও তৃতীয় হয়েছেন ইন্ডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিতম আজম হাসেন।

আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড ২.০ বিজয়ীদের সঙ্গে অতিথিরা। ছবি: প্রথম আলো

আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড ২.০ বিজয়ীদের সঙ্গে অতিথিরা। ছবি: প্রথম আলোজুনিয়র শ্রেণিতে বিজয়ীরা ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট সহ পেয়েছেন ল্যাপটপ ও স্মার্টফোন। সিনিয়র শ্রেণিতে বিজয়ীরা পেয়েছেন বালি ভ্রমণের সুযোগ।

আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠানে অতিথিরা। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, ঢাকা, ১১ অক্টোবর। ছবি: প্রথম আলো

বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আইডিএলসি ফাইন্যান্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ খান, টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিক, রবি আজিয়াটার চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম।আইডিএলসি ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠানে অতিথিরা। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, ঢাকা, ১১ অক্টোবর। ছবি: প্রথম আলোপ্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, শিক্ষা এমন আনন্দঘন পরিবেশে হলে ভালো হতো। দেশের ১১ কোটি মানুষের বয়স ৩৫ বছরের নিচে। সবাই যদি সঞ্চয় শুরু করে, তাহলে অর্থনীতির চাকা আরও গতিশীল হবে।

ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াডে অংশ নিতে শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ লাইন। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, ঢাকা, ১১ অক্টোবর। ছবি: প্রথম আলো

ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াডে অংশ নিতে শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ লাইন। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন, ঢাকা, ১১ অক্টোবর। ছবি: প্রথম আলো আইডিএলসি ফাইন্যান্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ খান বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি হচ্ছে। বিশ্বের বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো বাংলাদেশের উন্নতির কথা বলছে। সামনে যে আরও উন্নতি হবে তার পূর্বাভাস দিচ্ছে। এ জন্য সবার আর্থিক শিক্ষা জরুরি। একজন মানুষ যত আগে সঞ্চয় শুরু করবে, তিনি তত বেশি উপকৃত হবেন।

আরিফ খান বলেন, দেশের ৬৫ শতাংশ মানুষের বয়স ৩০ বছরের নিচে। তারাই ঠিক করবে দেশের অর্থনীতি কোথায় যাবে। এ জন্য সবার মধ্যে আর্থিক জ্ঞান ছড়িয়ে দিতেই ফাইন্যান্স অলিম্পিয়াডের এই আয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *